রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর নির্যাতনের প্রতিবাদে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মানববন্ধন

গণহত্যা ও নির্যাতনের ঘটনা তদন্তে আন্তর্জাতিক তদন্ত কমিটি গঠন করুন     
                            -----ঢাবি উপাচার্য

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান জাতিসংঘের ভাষণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রদত্ত ৫দফার প্রতি সমর্থন জানিয়ে বলেছেন, রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর পরিচালিত ভয়াবহ গণহত্যা ও নির্যাতনের ঘটনা তদন্তে অবিলম্বে আন্তর্জাতিক তদন্ত কমিটি গঠন করতে হবে এবং দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। মিয়ানমারে রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর বর্বর নির্যাতনের প্রতিবাদ এবং অবিলম্বে নির্যাতন বন্ধের দাবীতে ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭ মঙ্গলবার ‘স্মৃতি চিরন্তন’ চত্বরে আয়োজিত এক মানববন্ধন কর্মসূচীতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। সকাল ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত এই মানববন্ধন কর্মসূচী চলে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ  এই কর্মসূচীর আয়োজন করে।

মানববন্ধন কর্মসূচীতে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. অহিদুজ্জামান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. কামাল উদ্দীন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল, সিন্ডিকেট সদস্য অধ্যাপক ড. খন্দকার বজলুল হক, বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো. আব্দুল আজিজ, শামসুন নাহার হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. সুপ্রিয়া সাহা, মুক্তিযোদ্ধা প্রাতিষ্ঠানিক ইউনিট কমান্ডের সদস্য গোলাম রব্বানী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অফিসার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি সৈয়দ আলী আকবর, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ তৃতীয় শ্রেণি কর্মচারী সমিতি, কারিগরি কর্মচারী সমিতি ও  ৪র্থ শ্রেণি কর্মচারী ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান রোহিঙ্গা মুসলিমদের রক্ষায় নিরাপত্তা বলয় গড়ে তোলার ওপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, অবিলম্বে মিয়ানমারে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী বাহিনী মোতায়েন করতে হবে। আন্তর্জাতিক সংস্থার তত্ত্বাবধানে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের মিয়ানমারে প্রত্যাবর্তন ও পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করতে হবে। রোহিঙ্গা সংকটের স্থায়ী ও শান্তিপূর্ণ সমাধান নিশ্চিত করার দাবী জানিয়ে তিনি বলেন, ১ হাজার বছর ধরে রোহিঙ্গা মুসলিমরা মিয়ানমারে বসবাস করে আসছে। অথচ নিজ দেশে বারবার তাদের বর্বর নির্যাতন ও নিপীড়নের শিকার হতে হচ্ছে। মিয়ানমার শাসক গোষ্ঠীর এই মানবতা বিরোধী কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে অবস্থান গ্রহণের জন্য তিনি বিশ্ব সম্প্রদায়ের প্রতি আহবান জানান।

উল্লেখ্য, মানববন্ধনে অংশগ্রহণের সুবিধার্থে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাস ও অফিস সকাল ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত ছুটি ছিল। 
-----------------

(মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম)
উপ-পরিচালক 
জনসংযোগ দফতর
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

মিয়ানমারে রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর বর্বর নির্যাতনের প্রতিবাদ এবং অবিলম্বে নির্যাতন বন্ধের দাবীতে ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭ মঙ্গলবার ‘স্মৃতি চিরন্তন’ চত্বরে এক মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করা হয়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান কর্মসূচীতে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন। (ছবি: ঢাবি জনসংযোগ)